Categories
Literature

আমাদের লেখা আকাশ ফুঁড়ে যাক…

মানসপটে কল্পনার এক প্রচন্ড বিস্ফোরনের ফলেই এ উপন্যাস লেখা সম্ভব হয়েছে। গল্পের সময়কালঃ ভবিষ্যৎ বাংলাদেশ, ২০২৮ থেকে ৫৩ পর্যন্ত [হেক্টরের জন্ম]। তারপরও আরও ৮১ বছরের কথা উল্লেখ আছে। এক’শ ছয় বছর। এ গল্প লেখার তাড়না অনুভব করতে হয়েছে, গবেষণা চালাতে হয়েছে, ধ্যান করে নিজেকে গর্ভবান করতে হয়েছে, তবেই তিনি লিখতে পেরেছেন। হেক্টর নামে এক ভ্রুন […]

Categories
Blog

আমার অচেনা শুক্রবার

মতিউল নওশাদ ভাই প্রায় পাঁচ বছর আগে আমায় তার বাবার এক উপদেশের গল্প শুনিয়েছিলেন। তার বাবা সাপ্তাহিক ছুটির দিন কতটা সুন্দর করে কাটানো যায় তা নিয়ে তাকে পরামর্শ দিয়েছিলেন। বলেছিলেন, ‘সারা সপ্তাহ কাজ কর অন্যের জন্যে; সাপ্তাহিক ছুটির দিনটি তোমার; এই দিনটিকে যতটা পার লম্বা করবে; তোমার যা করতে ভাল লাগে, তাই করবে।‘ নওশাদ ভাইয়ে […]

Categories
Literature বাংলামি

সাহিত্যই হোক পাথেয়

ইংরেজ লেখক ফ্র্যান্সিস বেকন সতেরো’শ শতাব্দিতে বলেছিলেন ‘পড়াশোনা একজন পূর্ণাঙ্গ মানুষ গড়ে, আলাপচারিতা তৈরী করে উপস্থিত বুদ্ধিসম্পন্ন মানুষ এবং লেখা একজন সঠিক মানুষ গড়ে’। তাঁর এই মূল্যবান কথাগুলো যখন সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়লো, দেশে-দেশে কবি-সাহিত্যিকদের মানস আরো উদ্ভাসিত হলো। রেনেসাঁর পর সারা বিশ্বের সাহিত্যিকদের চিন্তা-সাগরে আরেকটি মাত্রা যোগ হলো। যদিও সাহিত্যিকরা কারো জন্যে অপেক্ষা করেন […]

Categories
Blog Literature

আমাদের ক্লাবের বইমেলা

আমাদের ক্লাবের বয়স বোধহয় ১৬ বছর হলো। সবাই অবধারিত চিন্তায় ধরেই নেন ক্লাব অর্থই আনন্দ – কারণে অকারণে আনন্দ। একটি ক্লাবে রেস্তোরাঁ থাকবে, পানশালা থাকবে, ব্যায়ামাগার থাকবে, টেনিস কোর্ট থাকবে, স্কোয়াশ খেলা থাকবে – সবই থাকবে সদস্যদের আনন্দের জন্যে। ক্লাব সংস্কৃতি এদেশে নিয়ে এসেছিলেন বিদেশীরা – বিশেষ করে বিলেতিরা। তারা নিজের দেশ ছেড়ে অন্য দেশ […]

Categories
Blog Column Literature

লেখকের রয়্যালটি কোথায়?

বইমেলা শুরুর প্রাক্কালে পত্রিকায় একটি খবর পড়ে খুব ভালো লেগেছিল। খবরে বলা হয়েছে, অমর একুশে বই মেলার পরিসর প্রতি বছরই বাড়ছে। জাতি হিসেবে এর চেয়ে আর বেশি কি পাওয়ার আছে? গর্ব হয় যখন উপলব্ধি করি বিশ্বের সবচেয়ে উৎসবমুখর বই মেলাটি অনুষ্ঠিত হয় আমাদের এই দেশে। মেলার সময়টিও খুব উপযুক্ত। যে মাসে মায়ের ভাষা বাঁচাতে আমাদেরই […]

Categories
Literature গল্পের কাছাকাছি

কেউ কেউ রয়ে যায়

চলন্ত রেলগাড়ির ভেতরে বসে সাঁই-সাঁই করে পার হয়ে যাওয়া স্টেশনগুলোর নামফলক পড়া আমার একটি নেশার মতো। সব পড়া যায় না, অনেকটি যায়। কিছু ফলক এতই পুরনো যে, পড়তে কষ্ট হয়। দিনের বেলা খুব একটা আনন্দদায়ক না হলেও, রাতের ট্রেনে যাওয়ার সময় ফলক চেনার পাশাপাশি স্টেশনের প্ল্যাটফর্মগুলোও দেখতে ভীষণ ইচ্ছে করে। অপেক্ষাকৃত নিশ্চুপ শহরের স্টেশন আমায় […]

Categories
গল্পের কাছাকাছি বাংলামি

শ্যাল উই ডান্স?

আলোর সামনে বসে আছে জয়তী। চুল আঁচড়াচ্ছে। বুকের কাপড়টা ঘাড় থেকে পিছলে বুকের মাঝে কোনোমতে বিঁধে রয়েছে। জয়তীর বুকের ছোট ছোট সোনালী লোম আর লোমকুপগুলো দেখা যাচ্ছে। মাটিতে নতুন ঘাসের মতো। আলো পড়াতে সেগুলো আরও উজ্জ্বল লাগছে। জয়তীর নিঃশ্বাসের ওঠানামার সঙ্গে সঙ্গে তার বুকটাও ওঠানামা করছে। সোনায় ঝলসানো লোমগুলোর দিকে শুভ অপলক তাকিয়ে আছে। চেষ্টা […]

Categories
বাংলা ছোট গল্প

মশা

মনজুর সাহেব সুবহে-সাদেকের পর জায়নামাজ থেকে উঠে জানালার পাশে তসবিহ হাতে বসে জিকির করতে করতে বাইরে অন্ধকারের দিকে তাকিয়ে আধো-আধো আলোয় দেখলেন অনেকগুলো মশা কাঁচের গায়ে মাথা গুঁজে আছে। নড়াচড়াও বোঝা যাচ্ছে। যেন ভেতরে আসতে চাইছে। তিনি দিব্যি দেখতে পাচ্ছেন। এই পতঙ্গগুলো এমনই, ভাবলেন তিনি। রক্ত চুষতে আসছে। রক্ত চোষাই এদের একমাত্র কাজ। মানুষ ও […]

Categories
বাংলা ছোট গল্প

ঈদের শাড়ি

আপিসে সহকর্মীদের কথার ঝাঁঝে কামরুল সবসময়ই ভীত থাকে। সহকর্মীরা বন্ধুদের মত নয়; বন্ধুদের জ্বালাতনে ঝাঁঝ থাকে না, সহকর্মীদের থাকে। কামরুল যত পারে কম কথা বলে আপিসে, যত পারে কম আড্ডা দেয়। আপিসে আড্ডা মানেই ঝাঁঝ, এমনই ঝাঁঝ যে রাতে মাঝে-মাঝে ঘুমেও ব্যাঘাত ঘটায়। সারাদিন আপিস করে বাড়ি ফেরার আয়োজন করতে-করতে কামরুলে মনে হয়, যাক! আজ […]